মোবাইল যখন স্বাস্থ্য ঝুঁকির কারণ!!

সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠা থেকে শুরু করে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগ পর্যন্ত মোবাইল ফোন মানুষের দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গী। কিন্তু জানেন কি, মোবাইল ফোনের এই নিত্য ব্যবহার কীভাবে আপনার শরীরের ক্ষতি করছে ?
একাধিক গবেষণার প্রতিবেদন অনুসারে, মোবাইলের প্রতি আসক্তি ক্যান্সারের মতো রোগের প্রকোপ বাড়িয়ে তুলছে। বিশেষত যারা মাথার কাছে ফোন রেখে ঘুমাতে যান, তাদের আয়ু কমেছে চোখে পড়ার মতো।
বর্তমানে অধিকাংশ মোবাইল ফোনেই ব্যবহৃত হয় লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি। এই ব্যাটারি থেকে স্বাভাবিক অবস্থায় প্রায় একশটি গ্যাস নির্গত হয়, যার মধ্যে রয়েছে কার্বন মনোক্সাইডের মতো বিষাক্ত গ্যাস। যা অতিমাত্রায় শরীরে প্রবেশ করলে মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। মোবাইলের ব্যাটারি থেকে নির্গত গ্যাসের প্রভাবে চোখ, নাক ও গলা জ্বালার মতো সমস্যাও দেখা দিতে পারে। এছাড়া যারা মাথার কাছে মোবাইল ফোন চার্জে লাগিয়ে ঘুমায়, ফোনের রেডিয়েশনের কারণে তাদের শারীরিক ক্ষতি হবার সম্ভাবনা বেশি। মোবাইল ফোন রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি ওয়েভের ভিত্তিতে কাজ করে তাই যারা দীর্ঘক্ষন কানে ফোন নিয়ে কথা বলেন তাদের কানে সমস্যা হবার সম্ভাবনা রয়েছে। এর ফলে ব্রেন টিউমার কিংবা মাথা বা গলার টিউমারও হতে পারে।
মোবাইল ফোনের হাত থেকে স্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে গবেষকরা পরামর্শ দিয়েছেন ঘুমানোর আগে মোবাইল ফোনটি বালিশের পাশে কিংবা বিছানার ওপর না রেখে বিছানা থেকে একটু দূরে কোনো কিছুর ওপরে রাখুন। এতে ফোনের রেডিয়েশন থেকে ঘুম নষ্ট হবে না। অনেকেই আবার কানে হেডফোন লাগিয়ে দীর্ঘক্ষন গান শুনতে থাকেন বা মোবাইল ফোনে গান চালিয়ে শুনতে শুনতে ঘুমিয়ে যান। এটি শরীরের জন্য অনেক ক্ষতিকর এই অভ্যাসটি পরিবর্তন করুন। ঘুমানোর আগে ফেসবুক চালানো কিংবা গেম খেলা থেকে বিরত থাকুন এবং বই পড়ুন, এতে মস্তিষ্ক কিছুতেই বিক্ষিপ্ত হবে না এবং ভালো ঘুম হবে। ফলে শরীর ও মন দুটিই ভালো থাকবে। এছাড়া আপনি কতক্ষণ মোবাইল ফোন ব্যবহার করবেন তার একটি দৈনন্দিন রুটিন তৈরি করুন।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *